পাসের হার ও জিপিএতে এগিয়ে মেয়েরা

টানা পঞ্চমবারের মতো এবারও সেকেন্ডারি স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় পাসের দিক থেকে এগিয়ে রয়েছে মেয়েরা। পাসের হার ও সংখ্যা দুদিক থেকেই মেয়েরা এগিয়ে রয়েছে। রোববার (৩১ মে) ঘোষিত ফল থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এবারের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলের অনুলিপি তুলে দেওয়া হয়। এর পর সেখানে ফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।
ঘোষিত ফল অনুযায়ী, এবারের পরীক্ষায় গড় পাসের হার দাঁড়িয়েছে ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ। তবে মেয়েদের পাসের হার ৮৪ দশমিক ১০ শতাংশ। আর ছেলেদের পাসের হার ৮১ দশমিক ৬৩ শতাংশ।
৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের বিভাগভিত্তিক ফলে দেখা যায়, বিজ্ঞান বিভাগে পাস করেছে সবচেয়ে বেশি ৯৪ দশমিক ৫৪ শতাংশ। এছাড়া ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের পরীক্ষার্থীদের পাসের হার ৮৪ দশমিক ৮০ শতাংশ এবং সবচেয়ে কম মানবিকে ৭৬ দশমিক ৩৯ শতাংশ।
অপরদিকে সারাদেশে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ। গত বছরের তুলনায় এ হার সামান্য বেশি। গত বছর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ।
রোববার (৩১ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। পরে তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ফেসবুক লাইভে ফল ঘোষণা করেন।
এ বছর ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ। অন্যদিকে মাদরাসা বোর্ডে পাসের হার ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ।
এ বছর দেশের বাইরের ৯টি কেন্দ্রে ৩৩৬ পরীক্ষার্থী এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। এর মধ্যে পাস করেছে ৩১৮ জন। পাসের হার ৯৪ দশমিক ৬৪ শতাংশ।
অপরদিকে পাসের হারে এগিয়ে আছে যশোর বোর্ড। যশোর বোর্ডে পাসের হার ৮৭.৩১, জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৩ হাজার ৭৬৪ জন। বরিশাল বোর্ডে পাসের হার ৭৯.১০। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৪৮৩। কুমিল্লা ৮৫.২২, জিপিএ-৫ পেয়েছে ১০ হাজার ২৪৫ জন। ময়মনসিংহ বোর্ডে পাশের হার ৮০.৩১, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭ হাজার ৪৩৪ জন। বরিশাল বোর্ড পাশের হার ৭৯.৭০, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৪৮৩। সিলেট বোর্ড পাশের হার ৭৮.৭৯ , জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ২৬৩ জন। দিনাজপুর বোর্ডে বোর্ড পাশের হার ৮২.৭৩ , জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ হাজার ৮৬ জন। চট্টগ্রাম বোর্ডে বোর্ড পাশের হার ৮৪.৭৫, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ৮ জন।
এবার করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে শিক্ষার্থীদের স্কুলে গিয়ে ফল জানার সুযোগ নেই। তাই এসএমএসের মাধ্যমে এসএসসির ফল প্রকাশ করছে শিক্ষাবোর্ড। ফল পেতে SSC স্পেস, বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস, রোল নম্বর স্পেস, পাসের সাল লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

সোনিয়া সনি/ওমেন বাংলাদেশ